ব্যবসা সাবধানতার সাথে করুন ,কারন লাভের পাশাপাশি লোকসানের মুখেও পড়তে হয়

বর্তমান বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান ই-কমার্স খাতে প্রতিদিন নতুন নতুন উদ্যোক্তা যুক্ত হচ্ছে। ব্যবসাটি কম পুঁজিতে করা যায় বিধায় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীরা এতে উৎসাহিত হচ্ছে। কিন্তু ব্যবসা না বুঝে হঠাৎ করে শুরু করার কারণে অনেকে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন আবার অনেকে টিকে থাকলেও উঠে দাড়াতে পারছেন না। কিন্তু কিছু লোক ঠিকই সফল হচ্ছেন এর ফলে এই সেক্টর দিন দিন প্রসারিত হচ্ছে। আসুন ই-কমার্স ব্যবসায় ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা তাদের লোকসানের বিষয়টা কিভাবে মোকাবিলা করবেন এ বিষয়ে আমরা কয়েকটি বিষয় শেয়ার করি।

জেনে শুনে ব্যবসা শুরু করুন
যেকোনো ব্যবসা জেনে শুনে শুরু করতে হয়। এ ব্যাপারে গাফিলতি করা এক ধরনের পাপ। আমাদের দেশে সাধারণত এ ধরনের প্রবণতা রয়েছে। আমরা ১০ লাখ টাকা খরচ করে বিদেশ যাই ১০ হাজার টাকা খরচ করে কোনো কাজ শিখিনা। আমরা ২০ লাখ টাকা খরচ করে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান শুরু করি কিন্তু ২০ হাজার টাকা খরচ করে ,সে ব্যবসায়ের খুঁটিনাটি জানতে চাইনা। এজন্য এটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার ,আপনি ব্যবসাটা বা পণ্যটা বা সেবাটা সম্পর্কে যত জানবেন তত অন্যের উপর নির্ভরশীলতা কমবে ,এবং আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। সাধারণত যারা বিভিন্ন ওয়ার্কশপে চাকরী করে তারা এ ব্যবসায়ে  সফল হয়।

আপনি করবেন ভালো পরিকল্পনা
একটি ভালো, সঠিক, সহজ, বাস্তবমুখী পরিকল্পনা একটা ব্যবসায়ের প্রাণ। তাই ব্যবসায়ের শুরুতে আপনি পরিকল্পনা করুন। আপনি কি করবেন,কেন করবেন, কিভাবে করবেন, এবং কাদের জন্য করবেন। এই প্রশ্নের জবাব খুঁজে আপনি প্রথম দফা উতরে যান। দ্বিতীয় দফায় আপনি দেখুন যে আপনার পণ্যের চাহিদা আছে কিনা। কত টাকা বিনিয়োগ করা যাবে,কত করে লাভ হতে পারে,পুঁজি উঠতে কতদিন সময় লাগতে পারে,  ইত্যাদি সব বিষয় ভেবে তবে পরিকল্পনা করুন। ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং ইত্যাদি কাজে কেমন খরচ হতে পারে। সেটা মোট খরচের কত শতাংশ এবং ইউনিট দামে কত পড়ে এতে করে আপনি  ক্ষতির সম্মুখীন হবেন কিনা, আগেই বোঝার চেষ্টা করুন। ধাপে ধাপে কাজ করবেন। সব টাকা একসাথে বিনিয়োগ না করে ,সেটাও পর্যায়ক্রমে করতে পারেন।

    Tags :

No Comment yet. Be the first :)

Related Posts