মুক্ত আসরের স্কুলভিত্তিক আয়োজন ‘বাংলাদেশকে জানো’

আমরা মুক্তিযুদ্ধ করে দেশটা স্বাধীন করেছি, তোমার এই দেশটাকে এখন রক্ষা করবা। এই দেশের সর্ম্পকে তোমাকে জানতে হবে। ভালোবেসে ঠিক মতো পড়াশোনা করে দেশের জন্য নিয়োজিত থাকতে হবে।

মুক্ত আসর। এর স্কুলভিত্তিক কর্মসূচি বাংলাদেশকে জানো শিরোনামে শুক্রবার রাজধানীর জুরাইনের সুরভী স্কুলের অনুষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মুক্ত আসরের উপদেষ্টা ও মুক্তিযোদ্ধা ডা.এম এস এ মনসুর আহমেদ মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণা শেষে এই কথা বলেন।

মুক্ত আসর এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি আবু সাঈদের সভাপতিত্বে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

জুরাইনে অবস্থিত সুরভী স্কুলগুলোর পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সালেহা আক্তার বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য তোমাদের সুনাগরিক হতে হবে। এজন্য তোমাদেরকে বাংলাদেশ সর্ম্পকে জানতে হবে। এ কাজটি মুক্ত আসর করে যাচ্ছে। এ জন্য তাদেরকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বিশিষ্ট সমাজসেবী রাজিয়া সুলতানা বলেন,সুন্দর মনের মানুষ হতে হবে তোমাদের। এজন্য তোমাদের এখন কাজ হবে ঠিক মতো পড়াশোনা কর এবং ইতিহাসচর্চা চালিয়ে যাও।

অনুষ্ঠানে মুক্ত আসরের উপদেষ্টা ও শিক্ষক রাশেদা নাসরীন বলেন, শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ, ইতিহাস, ঐতিহ্য সর্বোপরি বাংলাদেশ সম্পর্কে জানার জন্য এই আয়োজন আমরা করেছি। তোমাকে দেশকে ভালোবাসতে হবে। মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধা করতে হবে। তাদের অবদানের কথা জানতে হবে।

বাংলাদেশকে জানো কর্মসূচির শুরুতে শিক্ষার্থীদের নিয়ে বাংলাদেশ সম্পর্কে ৩০ মিনিট কুইজভিত্তিক লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে ৪জন শিক্ষার্থীর হাতে পুরস্কার হিসেবে বই ও সনদপত্র তুলে দেয়া হয়। আয়োজনে আরও একটি অংশ ছিল আমার স্বপ্ন শিরোনামে রচনা প্রতিযোগিতা। সেখানেও সেরা তিন জনকে পুরস্কার হিসেবে বই দেয়া হয় ।

শিক্ষার্থীরা অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি, গান ও নাচ পরিবেশন করেন। সুরভী স্কুলের সব ১১টি কেন্দ্রের ১১জন শিক্ষক সমবেত কণ্ঠে ধনধান্য পুষ্পভরা গানটি পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন স্কুলের শিক্ষক অহনা সালমা।

 

Related Posts