যে সঠিক ১০টি নিয়মে ব্যায়াম করলে পেশী বৃদ্বি পায় সহজে বিল্ডার হন

সঠিক নিয়মে বডিবিল্ডিং করে শরীরে পেশী বাড়ান 


মো:মুহিবুর রাহমান তালুদার


আপনি শরীররের পেশী বিল্ডিং করুণ অথবা সুঠাম দেহের অধিকারী হতে চান তবে অবশ্যই আপনাকে কিছু টিপস অনুসরণ করতে হবে। বডিবিল্ডিং করার ফলে আপনার পেশী ক্ষমতা বৃ্দ্বি পায় এবং শরীরের পেশী বৃদ্বি পায় জেনেনিন ১০টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ টিপস।


১.সঠিক প্রশিক্ষক বেছে নিন:

সঠিক প্রশিক্ষক বেছে নেওয়ার মাধ্যমে আপনি আপনার পেশী বিল্ডিং তথা শরীরচর্চারর প্রথম ধাপ সঠিক ভাবে শুরু করতে পারবেন। চারটি উপায়ে আপনি আপনার শরীরচর্চারর জন্য সঠিক প্রশিক্ষক বাছাই করতে পারেন যেমন- ১/পরিচয়পএ ২/ তাঁর ব্যক্তিত্ব  ৩/ তাঁর নিজের শরীরের গঠন এবং ৪/ তাঁর প্রতিনির্দেশ দেয়ার ক্ষমতা।

এ ক্ষেএে আপনি প্রশিক্ষকের অতীত অভিজ্ঞতাও জেনে নিতে পারেন।


২.শরীরচর্চারর জন্য শরীরের সুস্থ অবস্থান :

আপনি যদি শরীরচর্চায় নতুন হলে আপনাকে আগে দেখে নিতে হবে আপনার শরীর কি শরীরচর্চার জন্য প্রস্তুত আছে কিনা! আপনার শরীরকে আগে ভারী শরীরচর্চার জন্য তৈরী করুণ, আপনার শরীরের প্রাথমিক টিস্যু সমূহ ধীরে ধীরে গড়ে তুলুন। তা নাহলে আপনার শরীর তার সীমার অতিক্রম ভার বহন করতে উল্টা টিস্যুর ক্ষতি সাধন হবে।


৩.যা করবেন:

শরীরের ওজন বাড়াতে এবং এর ভর ধারণ ক্ষমতা বাড়ান। ভর ধারণ  ক্ষমতা বাড়ানোর সময় অবশ্যই ধীরে আগাবেন। আগে সাধারণ ব্যায়াম বেশি করে করবেন। বিশ্রাম ও ব্যায়ামের মাঝে পরিধি কমান, বিশ্রাম কম করুন ব্যয়াম বেশি করুন।


৪.ওর্য়াম আপ:

ভারী ব্যায়াম শুরু করার আগে অবশ্যই শরীরের ওর্য়াম আপ করে নিন,আপনি যখন হালকা ওজন নিয়ে ব্যায়াম করবেন তখন আপনার পেশী সমূহ ধীরে ধীরে ভারী ওজন গ্রহনের জন্য তৈরি হতে থাকবেন।আপনি যদি ওর্য়াম আপ না করে সরাসরি ভারী ওজন দিয়ে ব্যায়াম শুরু করেন তাহলে আপনার সকল প্রচেষ্টা চলে যাবে।


৫.ধীরে ধীরে ওজন উত্তোলন বাড়ান:

আপনি প্রথমে কম ওজন পরে আস্তে আস্তে ওজনে পরিমাণ বাড়াতে থাকুন। ওজনের ধীর ক্রম বৃদ্বি আপনার পেশীকে আস্তে আস্তে বাড়াতে, এর ফলে আপনার ওজন উত্তোলন ক্ষমতা বৃদ্বি পেতে থাকে।


৬.প্রতিদিন ওজন উত্তোলন করবেন না:

আপনার ব্যামের রুটিনে প্রতিদিন ওজন উত্তোলন রাখবেনা। মাঝে বিরতি দিয়ে ওজন উত্তোলন করুন কারণ আপনার পেশী  গঠন বাড়ে যখন আপনি ভারী ব্যায়াম করে বিশ্রাম নিবেন।  অত এব ভারী  ব্যায়াম করার পর শরীরকে অত্যন্ত ২৪  ঘণ্টা বিশ্রাম দিতে পারেন।


৭.সাধারণ  ওজন ব্যবহার করুণ :

মেশিনে ওজন উত্তোলন না করে সাধারণ ওজন উত্তোলন করার চেষ্টা করুন। সাধারণ ওজন উত্তোলনের ফলে আপনি আপনার পেশী সূমহ ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ভাবে গঠিত করতে পারবেন এর ফলে আপনার শরীর গঠন  আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে।

এছাড়াও আপনার ছোট পেশি বড় পেশী গঠনের ভূমিকা রাখবে।


৮.বেশি বেশিখাবার খান:

আপনার ব্যায়াম করার ফলে আপনার শরীরে প্রচুর শক্তির প্রয়োজন হয়। সঠিক পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল খাবার গ্রহন করুন।যত বেশি ওজন উত্তোলন করবেন তত বেশি খাবার গ্রহন করতে হবে।


৯.টাইট এবং স্থর পেশীর জন্য যা করবেন:

সবাই চায় তার পেশী থাকবে শক্ত ও স্থরে  সাজানো।

এক্ষেত্র আপনি যা করতে হবে একি পেশীর ব্যায়াম সাপ্তাহে দুইদিন করেন। ধারাবাহিক ভাবে ভিন্ন ভিন্ন ব্যায়াম করুন এভাবে সব গুলো পুনরাবৃতি করুন। বিশ্রামের পরিধি কমান ব্যায়ামের পরিধি বাড়ান।


১০.যেভাবে শক্তি ও ক্ষমতা বৃদ্বি করবেন:

শক্তি এবং ক্ষমতা বাড়াতে আপনাকে যা করতে হবে তা হল ধীরে ধীরে ধাপে ধাপে আপনি ওজন উত্তোলন  বাড়াবেন এবং ধাপে ধাপে ভিন্ন ওজনের ভিন্ন ব্যায়াম করুন। এবং একই ব্যায়াম পালাক্রমে করতে থাকুন সাপ্তাহজুড়ে।


এইভাবে  আপনি আপনার পেশী  বৃদ্বি করতে পারে।

    Tags :

No Comment yet. Be the first :)

Related Posts