শীতে ছেলেদের রূপচর্চা

রূপচর্চা মেয়েদেরই বিষয়। সাধারণ ধারণা এমনটাই। তবে সেই দিন ফুরিয়েছে আগেই। বর্তমানে অনেক ছেলেই ত্বক ও চুলের যত্নে হয়ে উঠেছেন সচেতন। শুধু বাড়িতেই নয়, প্রতিষ্ঠানভিত্তিক সেবাও নিচ্ছেন এখন অনেকে। শীত আসছে। তবে ত্বকে শুষ্কতা দেখা যাচ্ছে এখন থেকেই। সামনের দু-তিন মাস সুস্থ ও সুন্দর ত্বকের জন্য প্রয়োজন যত্ন। জেনে নেওয়া যাক বিশেষজ্ঞ পরামর্শ।
শীতের সময় ত্বক শুষ্ক হবে, এটাই স্বাভাবিক। গ্রীষ্মের মতো বারবার মুখ ধোয়া বাদ দিয়ে দিন। অবশ্য প্রতিদিন একবার সাবান দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করতে কোনো বাধা নেই। বেশি ক্ষারযুক্ত সাবান এই সময় ব্যবহার না করাই ভালো। ত্বক ধোয়ার পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার এখন বেশি দরকার। তবে যেকোনো প্রসাধনসামগ্রী ব্যবহারের পর যদি ত্বক লাল হয়ে যায় বা ত্বকে র‌্যাশ দেখা দেয়, তাহলে সেটি ড্রেসিং টেবিল থেকে সরিয়ে ফেলুন।

বাড়িতে বাড়তি যত্ন
শীত হোক বা অন্য যেকোনো সময়ই হোক, ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক জিনিসই সবচেয়ে ভালো। বাড়িতেই ত্বক ও চুলের যত্ন নিতে পারবেন। জানালেন অ্যাডোনাইজের স্বত্বাধিকারী ও রূপবিশেষজ্ঞ মোহাম্মদ হোসেন -
১. গাজর ও দুধ একসঙ্গে ব্লেন্ড করে প্যাক তৈরি করতে পারেন। প্যাকটি মুখে লাগানোর ১০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।
২. উজ্জ্বল ত্বকের জন্য পানিতে কিছুটা জাফরান দিয়ে সেই পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
৩. সুজি, দুধের সর বা দুধ এবং মধু মিশিয়ে নিয়ে মিশ্রণটি স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। ১০-১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একবার এই মিশ্রণ ব্যবহার করতে পারেন। সুজি মেশানোর আগে ভেজে নেওয়া ভালো।
৪. অ্যালোভেরা ও জলপাই তেল মিশিয়ে ফেসওয়াশের মতো করে ব্যবহার করতে পারেন।
৫. কখনোই মুখ ধোয়ার সময় মুখের ত্বকে হাত দিয়ে নিচের দিকে টানা উচিত নয়। এতে সহজেই ত্বকে বলিরেখা দেখা দেয়। তাই নিচের দিকে নয়, হাত টানবেন ওপর দিকে।
৬. খুশকির সমস্যা সমাধানে মাথার ত্বকে ও চুলে সপ্তাহে ১-২ দিন তেল মালিশ করতে পারেন। জলপাই তেল বা ক্যাস্টর অয়েল বেছে নিতে পারেন। ১০-১৫ মিনিট পর চুল ধুয়ে ফেলুন। প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে ক্ষতি নেই। মিল্ক শ্যাম্পু বেছে নিতে পারেন এই সময়ের জন্য।

Related Posts