সাহিত্য সম্পর্কে আমরা কি বুঝি

রাহমাত:  সাহিত্য বলতে আমরা যথাসম্ভব বুঝি কোন লিখিত বিষয়বস্তুকে । সাহিত্য শিল্পের একটি অংশ হিসেবে আমরা জানি। এমন কোন লেখা যা শিল্পের বা বুদ্ধিমত্তার আঁচ পাওয়া যায়, অথবা, যা বিশেষ কোন ধরণের লেখা থেকে ভিন্ন। সারকথা ইন্দ্রিয় দ্বারা জাগতিক বা মহাজাগতিক চিন্তা চেতনা, অনুভূতি বা লেখকের বাস্তব জীবনের অনুভূতি হচ্ছে সাহিত্য। সাহিত্যের পরিচ্ছদ সমূহ: ১। পদ্য, ২। গদ্য, ৩। নাটক। পদ্যঃ পদ্য হলো সাহিত্যিক ধারার একটি রূপ, যা কোন ভাব প্রকাশের জন্য প্রতীয়মান অর্থ না ব্যবহার করে ভাষার ছন্দবদ্ধ গুণ ব্যবহার করে থাকে। পদ্য ছন্দোবদ্ধ বাক্য ব্যবহারের কারণে গদ্য থেকে ভিন্ন হয়ে থাকে। গদ্য লেখা হয় বাক্য আকারে। এবং পদ্য লেখা হয় ছন্দ আকারে। গদ্যঃ গদ্য হলো ভাষার একটি সাধারণ পদবিন্যাস ও স্বাভাবিক বক্তব্য ছন্দ আকারে লেখা । গদ্যের ঐতিহাসিক বিকাস প্রসঙ্গে স্যার রির্চাভ গ্রাফ বলেছেন, “প্রাচীন গ্রিসের ক্ষেত্রে সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা যায় যে গদ্য তুলনামুলকভাবে অনেক পরে বিস্তার লাভ করেছ্। এই আবিস্কার ধ্রুপদী যুগের সাথে সম্পর্কিত। নাটকঃ নাটক সমন্ধে বলতে গেলে নাটক এক ধরনের সাহিত্য যার মূল উদ্দেশ্য হল তা পরিবেশন করা। সাহিত্যের এই ধারায় প্রায়ই গান ও নৃত্য যুক্ত হয়ে থাকে । যেমন, অপরিচিতা, ঝিলিমিলি, ঝড়, পিলে পটকা পুতুলের বিয়ে ইত্যাদি।

    Tags :

No Comment yet. Be the first :)

Related Posts